Archive for ডিসেম্বর, 2011

ডিসেম্বর 14, 2011

কেউ কথা রাখেনি [গোলাম আজমের কবিতা]


কেউ কথা রাখেনি, চল্লিশ বছর কাটলো, কেউ কথা রাখেনি
ছেলেবেলায় এক নূরানী সময়ে পাকি বাবারা বলেছিলো
তোকে পূর্বের রাজা বানিয়ে দিবো, আরামচে জর্দ্দা দিয়ে পান খাবি
তারপর কতদিন পান খেয়ে ঠোঁট লাল করিলাম, এক বিধবা ছাড়া আর কাউকে পেলাম না
সিংহাসনতো দূরের কথা।

পশ্চিমের জুলফিকার আলী ভুট্টো বলেছিল, বড় হও গোলামের বাচ্চা
পাছায় চর্বি জমিয়ে নাও- আমি দু’টা থাপ্পড় দিবো, একটু মলে দিবো
তুমিও রাজা হয়ে তোমার গেলমানদের একটু থাবড়ে দিও, মলে দিও !
জুলফিকার আলি, আমি আর কত বড় হবো ? আমার চারপাশে এখন শতশত ডিম
আর কতোটি ডিম তাড়া করলে তারপর তুমি আমায় সিংহাসনের পায়া দেখাবে ?

read more »

Advertisements
ডিসেম্বর 12, 2011

জননেতা তোফায়েল আহমেদ, বেয়াদব সেলিম মন্ত্রী হচ্ছেন ।। ……।।


উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য জননেতা তোফায়েল আহমেদ, সভাপতিম-লীর সদস্য বেয়াদব শেখ ফজলুল করিম সেলিম ও জনতার মালঞ্চ সদ্য পুত্র হারা খেসারত প্রাপ্ত  ড. মহিউদ্দিন খান আলমগীরের নাম শোনা যাচ্ছে।

আগামী ৫ জানুয়ারি বর্তমান সরকারের ৩ বছর পূর্ণ হচ্ছে। চতুর্থ বছরে পদাপর্ণের আগেই মন্ত্রিসভায় আরো পরিবর্তন আসতে পারে, এমনকি দায়িত্ব পাল্টাতে পারে একাধিক দপ্তরেও।

পূর্ণমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পেতে পারেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ক্যাপটেন (অব.) তাজুল ইসলাম মুক্তি ও স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী  ক্যাড়ার জাহাঙ্গীর কবির নানক।

আবার দলে অপেক্ষাকৃত জুনিয়র বা তরুণ ক্যাড়ার ছত্রলিঘ নেতাদের মধ্য থেকেও দুই একজনকে মন্ত্রী সভায় আনা হতে পারে।

পরিবর্তন হতে পারে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আফম রুহুল হক, ভুমিমন্ত্রী রেজাউল করিম হিরো, পরাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপউ কুমারী মনিকা, ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ফাশিখালাস আহাদ আলী সরকারসহ কোনো কোনো মন্ত্রির দপ্তরও। মাল মহিত গতকাল হোটেলে লেংটা নাচ দেখার জন্য প্রধান মন্ত্রী তার মাথায় হাত দিয়ে বলেন, এই দুষ্ট ছেলে এসব কাজ করতে নেই। তাই তার জন্য সিলেটের টিকেট করে রাখা হয়েছে ।

রদবদল ও সম্প্রসারণ হলেও এই মুহূর্তে মন্ত্রিসভা থেকে কারো বাদ পড়ার সম্ভাবনা আসে না? প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেই মন্ত্রিসভা থেকে কাউকে বাদ পুড়ার টেনশনে আসেন।

গত শনিবার গণভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তিন বছরে কেউ এমন কোনো ভাল কাজ করেনি 

read more »

ডিসেম্বর 12, 2011

শরীর প্রদর্শননির্ভর চরিত্রে জিয়া খান


 দৈনিক উষ্ণআলো |সোমবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১১

তখন তার বয়স ছিল মাত্র ১৬। অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে ‘নিঃশব্দ’ ছবিতে অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে বলিউডে পা রেখেছিলেন জিয়া খান। সেই বয়সেই ব্যাপক খোলামেলা পোশাকে অভিনয় করে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে অবস্থান করেছিলেন তিনি।

‘নিঃশব্দ’ ছবির মাধ্যমেই মিস্টার পারফেকশনিস্ট অভিনেতা হিসেবে খ্যাত আমির খানের নজরে চলে আসেন জিয়া। যার ফলশ্রুতিতে সুযোগ পান ‘গজনী’র মতো সুপারহিট ছবিতে অভিনয়ের। এরপর বেশ ক’জন অভিনেতার বিপরীতেই অভিনয় করেছেন তিনি। এবার নতুন একটি ছবিতে সম্পূর্ণ শরীর প্রদর্শননির্ভর একটি চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন তিনি।

মূলত এ সময়ের তরুণ-তরুণীদের মানসিক ও শারীরিক সম্পর্কের বিভিন্ন দিক বিভিন্নভাবে তুলে ধরা হবে এই ছবির কাহিনীতে। ছবিটি পরিচালনা করছেন অনুরাগ বাসু। এ ছবিতে জিয়া খানের ব্যাপক যৌন আবেদনের বিষয়টিকেও বেশ ভালভাবে ফুটিয়ে তোলা হবে, সে কারণে পরিবর্তন আসছে জিয়ার হেয়ার স্টাইল, মেকওভার থেকে শুরু করে পোশাক-আশাকের ধরনসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে।

এ ছবির জন্য ইতিমধ্যেই আরও ২ কেজি ওজন কমিয়েছেন জিয়া, যার ফলে তার শারীরিক যৌন আরও বেড়েছে বলেই বলছেন সবাই। আর এ ছবির জন্য যৌনটাকেই মুখ্য হিসেবে ধরা হচ্ছে। ছবিটিতে অভিনয় বিষয়ে জিয়া খান বলেন, ছবিতে যথারীতি হট জিয়া খানকেই দর্শকরা দেখতে পাবেন। উপভোগের পাশাপাশি ছবিটি তরুণদের জন্য একটি মেসেজও বহন করবে। সব মিলিয়ে কমপ্লিট একটি প্যাকেজের ছবি হচ্ছে এটি। সবারই ভাল লাগবে আশা করি।

read more »