Archive for জুন, 2011

জুন 30, 2011

ঐশ্বরিয়া রাই অন্তঃসত্ত্বা তাই প্রিয়াঙ্কা


প্রিয়াঙ্কা্র হাসি খুলামেলা দৃশ্যে অভিনয় তাই !

উষ্ণআলো  ড়েস্ক । ৩০ – ০৬ – ২০১১
ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার কারণে বাদ পড়ার পর ‘হিরোইন’ ছবিতে অভিনয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। জানা গেছে, ধূমপান, মদ্যপান , আবেগঘন দৃশ্য এবং সেক্সউয়াল _ কোনো অভিনয়েই আপত্তি নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি। ‘হিরোইন’ ছবি থেকে ঐশ্বরিয়ার বাদ পড়ার খবর জানার পরই ছবির পরিচালক মধুর ভাণ্ডারকারকে এসএমএস-এর মাধ্যমে ছবিতে কাজ করার আগ্রহের কথা জানিয়েছিলেন পিগি চপস। জানা গেছে, প্রিয়াঙ্কা মনে করছেন, এ ধরনের চরিত্রে কাজের সুযোগ পাওয়াটা জীবনে বারবার আসে না, আসলে তা তে একটু খুলামেলা দৃশ্য থাকলে মন্দ হয় না। ‘ফ্যাশন’ ছবিতে মধুর ভাণ্ডারকারের সঙ্গে প্রিয়াঙ্কার কাজের বোঝাপড়াটা খুবই ভালো ছিল। আর তাই তিনি প্রত্যাশা করছেন, ঐশ্বরিয়ার বদলে তাকেই ছবিটিতে অভিনয়ের সুযোগ দেবেন মধুর। জানা গেছে, কয়েক দিনের মধ্যেই ‘হিরোইন’ ছবির জন্য ঐশ্বরিয়ার পরিবর্তে নতুন নায়িকা নির্বাচনের কাজ শুরু করবেন মধুর ভাণ্ডারকার।

জুন 28, 2011

ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী দের নিয়ে আবার নতুন করে রাজনীতি হচ্ছে


২০১১-১২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে শেয়ারবাজারসহ যেকোনো ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডে ও বিনিয়োগে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ বন্ধের দাবি জানিয়েছে বিএনপি।

বিএনপি মনে করে কালো টাকা সাদা করার একমাত্র আমরাই দাবিদার । দলটির অভিযোগ, যারা শেয়ারবাজার থেকে টাকা লুটপাট করেছে, তারাই কালো টাকা সাদা করার সুযোগ রাখার দাবি করছে।

সার্বিকভাবে বাজেট সম্পর্কে বিএনপি মনে করে, দেশের প্রয়োজনের নিরিখে এই বাজেট মোটেই উচ্চাকাঙ্ক্ষী নয়, তবে সরকারের এই বিশাল বাজেট বাস্তবায়নযোগ্যও নয়।
২০১১-১২ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে আজ সোমবার বিএনপি আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়ায় এসব কথা বলে। দলটি এ উপলক্ষে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য এম কে আনোয়ার।
এই বাজেট জনবান্ধব ও বিনিয়োগবান্ধব নয় উল্লেখ করে দলটি একে ‘নির্দেশনাবিহীন পথচলা’ বলে মন্তব্য করে।

আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন না পেয়ে বিএনপিতে আসা এই নেতা , এম কে আনোয়ার বলেন খালেদা জিয়া  কালো টাকা সাদা করেছেন এর সময় শেষ তাইএখন শেয়ার মার্কেটে কালো টাকা সাদা করার বিরোধীতা করছে বিএনপি। এর পিছনে কারন একটাই বিএনপি চায় না শেয়ার মার্কেট আবার ঘুরে দাঁড়াক, শেয়ার মার্কেট আবার ঘুরে দাঁড়াক সরকার তা চাই না একে রাজনৈতিক ইশ্যু হিসাবে ব্যবহার করতে চাই। এই হল আমাদের আওয়ামী লীগের খেলা।

জুন 25, 2011

হাস্যকর গুগল ট্রান্সলেটর (আমাদের প্রিয় মাতৃভাষা যুক্ত হলো গুগলে )


বাংলা ভাষা নিয়ে আমাদের অনেক আবেগ কাজ করে। আমরা ভাষার অবমাননা সহ্য করতে পারি না। ওয়েবের শক্তি সম্পর্কে কারুরই সন্দেহের অবকাশ নেই। বিশ্বের যে কোন কোনার মানুষের সাথে নিমিষে কথোপকথন, একে অপরকে জানা সম্ভব অনায়াসেই এমন সব প্রযুক্তি আমাদের হাতের মুঠোয়।

তবু কিছু অনুবাদ দেখে আপনি অবাক না হয়ে পারবেন না।

যেমনঃ –  hasina is bad        হাসিনা ভাল
sheik hasina is bad    কর্তৃত্বপরায়ণ হাসিনা ভাল
khaleda  is bad      বিএনপির হয় খারাপ

আপনি একটু দেকুন ????

ট্যাগ সমুহঃ , ,
জুন 24, 2011

৩৭ বছর গোসল না করে স্ত্রীর সাথে বসবাস


পুটুর খেস লম্বা হয়ে দুর্গন্ধ চড়াচ্ছে

ভারতের বারানসির গুরু কৈলাশ সিং পৃথিবীর সবচেয়ে দুর্গন্ধময় ব্যাক্তি কি-না তা নিয়ে যথেষ্ট বিতর্ক রয়েছে। কারণ গত ৩৭ বছর ধরে তিনি আছেন গোসল ছাড়া। পরিবারের সদস্যদের শত অনুরোধ, প্রতিবেশীদের কটাক্ষও দমাতে পারেনি তার এই অদ্ভুত অভ্যাস।
৬৫ বছর বয়স্ক কৈলাস সিং গত ৩৭ বছর ধরে যেমন গোসল করেন না, তেমনি কাটেন না চুল, দাড়ি কিছুই। তার ৬ ফুট লম্বা চুল, দাড়ির গন্ধে তার ধারে কাছে ঘেঁষতে চায় না কেউ। শেষ তিনি নাকি চুল, দাড়ি কাটিয়েছিলেন ১৯৭৪ সালে তার বিয়ের পর। তার গোসল না করা এবং চুল, দাড়ি না কাটার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তার ধর্মগুরু নাকি তাকে স্বপ্নে এভাবে থাকতে বলেছেন। ধর্মগুরুর এই আদেশ মেনে চললে নাকি তিনি তাকে অধিক ছেলে সন্তান বা উত্তরাধিকারী দেবেন। একমাত্র মৃত্যুর পরই তার মরদেহের গোসল হবে এবং তা করাবে তার শুধু মাত্র তার ছেলে বলে তিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ব্যাক্তিগত জীবনে কৈলাস সিং ৪ মেয়ে ও এক ছেলের জনক। তার স্ত্রী ৬০ বছর বয়স্ক কালাভাতি দেবী বলেন, আমরা অনেকবার তাকে স্নান করার ব্যাপারে বিভিন্নভাবে চাপ দিয়েছি। কোনোভাবেই তাকে রাজি করানো যায়নি। সবশেষ তার স্ত্রী হুমকি দিয়েছেন এই বলে যে, যদি কৈলাস সিং তার এই অভ্যাস ত্যাগ না করেন তাহলে তিনি ঘুমানো বন্ধ করে দেবেন।

ট্যাগ সমুহঃ , ,
জুন 24, 2011

নওশীন ও তিশা,জয়ের বউ !


জয়ের বউ হতে পেরে নওশীন koob খুশি

শাহরিয়ার নাজিম জয়ের দুই স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করেছেন নওশীন ও তিশা।

নাটকের গল্পে দেখা যাবে জয়ের প্রথম স্ত্রী নওশীন মা হতে চলেছেন। কিন্তু এক অনাকাক্সিক্ষত ভয় ও অনিশ্চয়তার কারণে একপর্যায়ে মারা যায় নওশীন। বছরখানেক পরে জয় বিয়ে করে তিশাকে। জয়ের সঙ্গে পরিচয় হওয়ার পর খুব অল্প সময়ের মধ্যেই জয়কে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেয় তিশা। জয়ের প্রথম স্ত্রীর কথাও অজানা নয় তিশার। বিয়ের পর প্রথমদিকে তাদের দাম্পত্যজীবন ভালোই কাটছিল। কিন্তু সমস্যা দেখা দেয় তখন, যখন তিশা জয়ের নিষেধ সত্ত্বেও একটি তালাবদ্ধ ড্রয়ার খুলে.

অঞ্জন আইচের রচনা ও পরিচালনায় নির্মিত একটি একক নাটক ‘একটি আশ্চর্য লাল টিপ’-